প্রকল্প প্রধানের বাণী

কার্পেটিং জুট মিলস্ লিঃ এর সম্মানিত সকল Stake holder গণকে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা । আপনারা জানেন যে, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পাটশিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করছে । পাট শিল্পের সাফল্যের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার জন্য বিজেএমসি নিরলস কাজ করে যাচ্ছে । বিজেএমসির একটি মিল হিসাবে কার্পেটিং জুট মিলস্ লিঃ এর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে । ইতিহাস পর্যালোচনা করে দেখা যায় ঐতিহাসিক ৬ দফা আন্দোলনে মূল যে দাবী ছিল তার মধ্যে একটি ছিল পাটশিল্পের উন্নয়ন । তাছাড়া স্বাধীনতার পরপরই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের পাটকলগুলোকে জাতীয়করণ করেন । বঙ্গবন্ধুর জনকল্যাণমুখী সিদ্ধান্তে স্বাধীনতার পর প্রথম ৪ বছর বাংলাদেশের মোট বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের শতকরা ৮০ ভাগেরও বেশী অর্জিত হয়েছিল পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি থেকে । দেশের এক পঞ্চমাংশ জনগোষ্ঠী প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত ছিলেন এ শিল্পের সাথে । কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যার পর দেশী-বিদেশী চক্রান্তে এদেশের পাট শিল্পকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে ঠেলে দেয়া হয়েছিল । এহেন প্রেক্ষাপটে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জনকল্যাণমুখী সিদ্ধান্তের আলোকে মৃতপ্রায় পাটশিল্পকে পুনরুজ্জীবিত করেন এবং বন্ধকৃত পাটকলগুলো পুনরায় চালু করেন । সম্প্রতি তিনি পাট পণ্যকে কৃষিপণ্য ঘোষণা করে পাট শিল্পে নতুনভাবে প্রাণ সঞ্চার করার মধ্য দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে অগ্রসরমান। কার্পেটিং জুট মিলস্ লিঃ এ অগ্রযাত্রায় সারথী ।

এ অবস্থায় সকল অংশিজনকে কার্পেটিং জুট মিলস্ লিঃ এর সাথে থাকার জন্য আহবান রইল ।